Wednesday, 12.12.2018, 10:10am (GMT+6)
  Home
  FAQ
  RSS
  Links
  Site Map
  Contact
 
আবদুুল হাই মাশরেকী ছিলেন মূলসংস্কৃতির শিকড়ের আধুনিক কবি ; লোককবি আবদুুল হাই মাশরেকীর ৯৭তম জন্মজয়ন্তী উপলক্ষে শিল্পকলায় দুদিনব্যা ; লোককবি আবদুুল হাই মাশরেকীর ৯৭ তম জন্মজয়ন্তী আগামী ১ এপ্রিল ২০১৬ ; আল মুজাহিদী ; ভাষাসৈনিক আবদুল মতিন
::| Keyword:       [Advance Search]
 
All News  
  গুণীজন সংবাদ
  বিপ্লবী
  ভাষা সৈনিক
  মুক্তিযোদ্ধা
  রাজনীতিবিদ
  কবি
  নাট্যকার
  লেখক
  ব্যাংকার
  ডাক্তার
  সংসদ সদস্য
  শিক্ষাবিদ
  আইনজীবি
  অর্থনীতিবিদ
  খেলোয়াড়
  গবেষক
  গণমাধ্যম
  সংগঠক
  অভিনেতা
  সঙ্গীত
  চিত্রশিল্পি
  কার্টুনিস্ট
  সাহিত্যকুঞ্জ
  ফটো গ্যাল্যারি
  কবিয়াল
  গুণীজন বচন
  তথ্য কর্ণার
  গুণীজন ফিড
  ফিউচার লিডার্স
  ::| Newsletter
Your Name:
Your Email:
 
 
 
ভাষা সৈনিক
 
ইসলাম, অধ্যাপক মির্জা মাজহারুল (১৯২৭)



অধ্যাপক মির্জা মাজহারুল ইসলাম ১৯২৭ সালের ১ জানুয়ারি  টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার চারান গ্রামে জন্মগ্রহণকরেন। তাঁর পিতার নাম মির্জা হেলাল উদ্দিন, মাতার নাম চান্দ খাতুন। ১৯৪৪ সালে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনেপ্রথম বিভাগে ম্যাট্রিক, ১৯৪৬ সালে কলকাতার রিপন কলেজ থেকে আইএসসি এবং ১৯৫২ সালে ঢাকা মেডিকেল কলেজথেকে এমবিবিএস পাশ করেন।

১৯৫২ সালের আগষ্ট মাসে অনারারি হাউজ সার্জন হিসেবে ঢাকা মেডিকেল কলেজে কর্মজীবন শুরম্ন করেন এবং আগস্টমাসে তৎকালীন ই পি এম এস ক্যাডারে ঢাকা মেডিকেল কলেজে যোগদান করেন। ১৯৫৪ সাল পর্যনত্ম হাউস সার্জন ওইমার্জেন্সি মেডিকেল অফিসার এবং ১৯৫৮ সালে বরিশাল সদর হাসপাতালের সহকারী সার্জন এবং ১৯৬০ সালে ফরিদপুরসদর হাসপাতালের সহকারী সার্জন হিসেবে কাজ করেন। ১৯৬৩ সালে উচ্চতর ডিগ্রি লাভের উদ্দেশে সরকারি বৃত্তি নিয়েযুক্তরাজ্য যান এবং ১৯৬৬ সালে এফআরসি এস ডিগ্রি নিয়ে স্বদেশ প্রত্যাবর্তন করেন। ১৯৬৬ সালে সহযোগী অধ্যাপকহিসেবে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজে, ১৯৭৬ সালে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে ‘প্রফেসর অব সার্জারি ও প্রিন্সিপাল’ হিসেবে যোগদান করেন।

১৯৮০ সালে ঢাকা মেডিকল কলেজে ‘প্রফেসর অব সার্জারি’ এবং ১৯৮৫ সালে প্রিন্সিপাল হিসেবে দায়িত্বভার গ্রহণকরেন। ১৯৮৬ সালে একই কলেজ থেকে অবসর গ্রহণ করেন। অবসর নেয়ার পর কিছু দিন জহুরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজের উপদেষ্টা হিসেবে কলেজ প্রতিষ্ঠায় ভূমিকা রাখেন। ১৯৯৩ সালে বারডেমের সার্জারি বিভাগের মুখ্য উপদেষ্টাহিসেবে যোগদান করেন এবং অদ্যাবধি দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন। তিনি দু’বার বারডেমের অবৈতনিক মহাপরিচালকেরদায়িত্ব পালন করেন।

মির্জা মাজহারুল ইসলাম ঢাকা মেডিকেল কলেজের প্রথম ব্যাচের ছাত্র, প্রথম দিকে থাকতেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সলিমুললাস্হ মুসলিম হলে পরে ১৯ নং ব্যারাকের ৫ নং রম্নমে। তিনি ১৯৪৭ সালে ভাষা আন্দোলনের সূচনাপর্ব থেকেই এআন্দোলনে জড়িত হন। ১৯৪৭ সালের ১ সেপ্টেম্বর গঠিত হয় ভাষা তমদ্দুন মজলিস। সেই সময় থেকেই তিনি মজলিসেরএকজন কর্মী হিসেবে ঢাকা মেডিকেল কলেজে ভাষা আন্দোলন সংগঠিত করেন। ভাষা আন্দোলনের সূচনাপর্বের প্রায় প্রতিটিঘটনায় মেডিকেল কলেজের প্রতিনিধি হিসেবে তিনি সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করেন।

১৯৪৮ সালের ১১ মার্চ পাকিসত্মান উত্তর প্রথম হরতালে পিকেটিং করতে যেয়ে তিনি পুলিশী নির্যাতনের শিকার হন। ২২মার্চ রেসকোর্স ময়দানে মোহাম্মদ আলী জিন্নাহর সভায়, ১৫ মার্চ রাষ্ট্রভাষা চুক্তি সম্পাদনের নানা প্রক্রিয়ায় এবং ১৬ মার্চঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বেলতলায় অনুষ্ঠিত সভায় উপসি'ত ছিলেন মির্জা মাজহারুল ইসলাম। একুশে ফেব্রম্নয়ারি ছাত্র হত্যারপর তিনি হাসপাতালে কর্মরত অবস'ায় অসংখ্য আহত ভাষাকর্মীর অপারেশন করেন। মেজর ইলিনসনের সাথে তিনিওভাষা শহীদ বরকতের অপারেশন কার্যে সহায়তা করেন। তিনি ২২ ফেব্রম্নয়ারি, গায়েবি জানাজায় অংশগ্রহণ করেন। তাছাড়ামেডিকেল ছাত্রদের সহায়তায় বস্নাড ব্যাংক স'াপনেও মির্জা মাজহারুল ইসলামের বিশেষ ভূমিকা রয়েছে।


Comments (0)        Print        Tell friend        Top


Other Articles:
চৌধুরী, সাবির আহমদ (১৯২৪)
মাহবুব, কাজী গোলাম (১৯২৭-২০০৬)
বেগম, মমতাজ (১৯২৩-১৯৬৭)



 
  ::| Events
December 2018  
Su Mo Tu We Th Fr Sa
            1
2 3 4 5 6 7 8
9 10 11 12 13 14 15
16 17 18 19 20 21 22
23 24 25 26 27 28 29
30 31          
 
::| Hot News
ভাষাসৈনিক আবদুল মতিন
সালাম, শহীদ আব্দুস (১৯২৫-১৯৫২)
রফিক, শহীদ মোহাম্মদ (১৯৩২-১৯৫২)
রহমান, শহীদ সফিউর (১৯১৮-১৯৫২)
বরকত, শহীদ আবুল  (১৯২৭-১৯৫২)
জব্বার, শহীদ আব্দুল (১৯১৯-১৯৫২)
অহিউলস্নাহ, শহীদ (জন্ম : অজ্ঞাত, মৃতু : ১৯৫২)
কাসেম, আবুল প্রিন্সিপাল (১৯২০-১৯৯১)
বাচ্চু, রওশন আরা (১৯৩২)
ইসলাম, অধ্যাপক মির্জা মাজহারুল (১৯২৭)

Online News Powered by: WebSoft
[Top Page]