Monday, 05.20.2019, 05:53pm (GMT+6)
  Home
  FAQ
  RSS
  Links
  Site Map
  Contact
 
আবদুুল হাই মাশরেকী ছিলেন মূলসংস্কৃতির শিকড়ের আধুনিক কবি ; লোককবি আবদুুল হাই মাশরেকীর ৯৭তম জন্মজয়ন্তী উপলক্ষে শিল্পকলায় দুদিনব্যা ; লোককবি আবদুুল হাই মাশরেকীর ৯৭ তম জন্মজয়ন্তী আগামী ১ এপ্রিল ২০১৬ ; আল মুজাহিদী ; ভাষাসৈনিক আবদুল মতিন
::| Keyword:       [Advance Search]
 
All News  
  গুণীজন সংবাদ
  বিপ্লবী
  ভাষা সৈনিক
  মুক্তিযোদ্ধা
  রাজনীতিবিদ
  কবি
  নাট্যকার
  লেখক
  ব্যাংকার
  ডাক্তার
  সংসদ সদস্য
  শিক্ষাবিদ
  আইনজীবি
  অর্থনীতিবিদ
  খেলোয়াড়
  গবেষক
  গণমাধ্যম
  সংগঠক
  অভিনেতা
  সঙ্গীত
  চিত্রশিল্পি
  কার্টুনিস্ট
  সাহিত্যকুঞ্জ
  ফটো গ্যাল্যারি
  কবিয়াল
  গুণীজন বচন
  তথ্য কর্ণার
  গুণীজন ফিড
  ফিউচার লিডার্স
  ::| Newsletter
Your Name:
Your Email:
 
 
 
ভাষা সৈনিক
 
জব্বার, শহীদ আব্দুল (১৯১৯-১৯৫২)



ভাষা আন্দোলনের অমর শহীদ আব্দুল জব্বার পেশাগত জীবনে একজন দর্জি ছিলেন। ১৪ মার্চ ১৯৫২ তারিখের দৈনিকআজাদে প্রকাশিত সরকারি তথ্য বিবরণীর খবর থেকে তাঁর সম্পর্কে আরো জানা যায় যে, তিনি গফরগাঁওয়ের পাঁচুয়া গ্রামেজন্মগ্রহণ করেন। ২১ ফেব্রম্নয়ারি মেডিকেল কলেজের সামনে গুলিবিদ্ধ হয়ে তিনি আহত হন এবং ওইদিন রাত ৮টার সময়হাসপাতালে মারা যান। এ সময় তাঁর বয়স হয়েছিল ৩০ বছর।

শহীদ আব্দুল জব্বারের জন্ম আনুমানিক ১৯১৯ সালে। তাঁর পিতার নাম হাসেম আলী শেখ ও মা’র নাম সাফিয়া খাতুন।প্রাথমিক শিক্ষা গ্রহণের পর শহীদ জব্বার হাইস্কুলে পড়াশুনা করতে পারেননি। ১৮ বছর বয়সে তিনি ‘পাকিসত্মান ন্যাশনালগার্ড (পিএনজি)’ আনসারের চাকরি গ্রহণ করেন  এবং রাওয়ালপিন্ডিতে চলে যান। কিন' একজন স্বাধীনচেতা বাঙালিহওয়ায় পাকিসত্মানীদের সাথে তাঁর মতের অমিল ঘটে। তাই ১৯৫০ সালে চাকরি ছেড়ে নিজ গ্রামে ফিরে আসেন। স'ানীয়লক্ষীপুর বাজারে মুদি দোকান দিয়ে বসেন।

১৯৫২ সালের ফেব্রম্নয়ারি মাসে শহীদ জব্বারের অসুস' শাশুড়িকে চিকিৎসার জন্য তিনি ঢাকা আসেন এবং তাঁর পরিচিত ডা. সিরাজুল ইসলামের মাধ্যমে শাশুড়িকে তিনি ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করান। ভাষাশহীদ জব্বার এসময়অসুস' শাশুড়ির সেবা-যত্ন করতেন। ২১ ফেব্রম্নয়ারির দিন ঢাকা মেডিকেল কলেজ প্রাঙ্গণে ছাত্র-জনতার মিছিলে তিনিঅংশগ্রহণ করেন এবং বাংলাকে রাষ্ট্রভাষা করার দাবিতে সেস্নাগান দেন। এক পর্যায়ে তিনি গুলিবিদ্ধ হন।

জব্বার এক স্ত্রী ও চার বছরের এক পুত্র রেখে শহীদ হন। তাঁর স্ত্রীর নাম আমেনা খাতুন ও পুত্রের নাম নুরম্নল ইসলাম বাদল।

২০০০ সালে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার শহীদ আবদুল জব্বারকে মরণোত্তর একুশে পদকে ভূষিত করেছে। শহীদআব্দুল জব্বারের বাড়ির নিকটস' গফরগাঁও-ভালুকা সড়কটির নামকরণ করা হয়েছে ‘ভাষাশহীদ আব্দুল জব্বার সড়ক’ নামে।শহীদ জব্বারের কবরটি সনাক্ত করেন জব্বারের ছোট ভাই এ.এইচ.এম. আসাদ। আজিমপুর পুরনো কবরস'ানে শহীদবরকতের কবরের দশ গজ পশ্চিমে শহীদ জব্বারের কবরটি চিহ্নিত করা হয়েছে। শহীদ জব্বারের সমাধিলিপিতে লেখাআছে:

২১শে ফেব্রম্নয়ারি, ১৯৫২ সালে

ভাষা আন্দোলনে শহীদ

আব্দুল জব্বার

মাধ্যম : এ.এইচ.এম আসাদ (নয়ন)

শহীদ জব্বারের ছোটভাই

সাং পাঁচুয়া, পোষ্ট পাঁচুয়া

থানা গফরগাঁও, জিলা ময়মনসিংহ


Comments (0)        Print        Tell friend        Top


Other Articles:
অহিউলস্নাহ, শহীদ (জন্ম : অজ্ঞাত, মৃতু : ১৯৫২)
গাজীউল হক
কাসেম, আবুল প্রিন্সিপাল (১৯২০-১৯৯১)
বাচ্চু, রওশন আরা (১৯৩২)
ইসলাম, অধ্যাপক মির্জা মাজহারুল (১৯২৭)
চৌধুরী, সাবির আহমদ (১৯২৪)
মাহবুব, কাজী গোলাম (১৯২৭-২০০৬)
বেগম, মমতাজ (১৯২৩-১৯৬৭)



 
  ::| Events
May 2019  
Su Mo Tu We Th Fr Sa
      1 2 3 4
5 6 7 8 9 10 11
12 13 14 15 16 17 18
19 20 21 22 23 24 25
26 27 28 29 30 31  
 
::| Hot News
ভাষাসৈনিক আবদুল মতিন
সালাম, শহীদ আব্দুস (১৯২৫-১৯৫২)
রফিক, শহীদ মোহাম্মদ (১৯৩২-১৯৫২)
রহমান, শহীদ সফিউর (১৯১৮-১৯৫২)
বরকত, শহীদ আবুল  (১৯২৭-১৯৫২)
জব্বার, শহীদ আব্দুল (১৯১৯-১৯৫২)
অহিউলস্নাহ, শহীদ (জন্ম : অজ্ঞাত, মৃতু : ১৯৫২)
কাসেম, আবুল প্রিন্সিপাল (১৯২০-১৯৯১)
বাচ্চু, রওশন আরা (১৯৩২)
ইসলাম, অধ্যাপক মির্জা মাজহারুল (১৯২৭)

Online News Powered by: WebSoft
[Top Page]