Tuesday, 08.22.2017, 01:20pm (GMT+6)
  Home
  FAQ
  RSS
  Links
  Site Map
  Contact
 
আবদুুল হাই মাশরেকী ছিলেন মূলসংস্কৃতির শিকড়ের আধুনিক কবি ; লোককবি আবদুুল হাই মাশরেকীর ৯৭তম জন্মজয়ন্তী উপলক্ষে শিল্পকলায় দুদিনব্যা ; লোককবি আবদুুল হাই মাশরেকীর ৯৭ তম জন্মজয়ন্তী আগামী ১ এপ্রিল ২০১৬ ; আল মুজাহিদী ; ভাষাসৈনিক আবদুল মতিন
::| Keyword:       [Advance Search]
 
All News  
  গুণীজন সংবাদ
  বিপ্লবী
  ভাষা সৈনিক
  মুক্তিযোদ্ধা
  রাজনীতিবিদ
  কবি
  নাট্যকার
  লেখক
  ব্যাংকার
  ডাক্তার
  সংসদ সদস্য
  শিক্ষাবিদ
  আইনজীবি
  অর্থনীতিবিদ
  খেলোয়াড়
  গবেষক
  গণমাধ্যম
  সংগঠক
  অভিনেতা
  সঙ্গীত
  চিত্রশিল্পি
  কার্টুনিস্ট
  সাহিত্যকুঞ্জ
  ফটো গ্যাল্যারি
  কবিয়াল
  গুণীজন বচন
  তথ্য কর্ণার
  গুণীজন ফিড
  ফিউচার লিডার্স
  ::| Newsletter
Your Name:
Your Email:
 
 
 
ভাষা সৈনিক
 
 
ভাষাসৈনিক আবদুল মতিন

ভাষাসৈনিক আবদুল মতিন ১৯২৬ সালের ৩ ডিসেম্বর সিরাজগঞ্জের চৌহালী উপর্জেলার ধুবালীয়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন।তাঁর পিতার নাম আবদুল জলিল ও মাতার নাম আমেনা খাতুন। তিনি ১৯৪৩ সালে ম্যাট্রিক, ১৯৪৫ সালে ইন্টারমিডিয়েট, ১৯৪৭ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিএ এবং পরে একই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এমএ পাশ করেন। Click for Details

 

ভাষাসৈনিক নিবেদিতা নাগ

স্বাধীনতা সংগ্রামী, ভাষা আন্দোলনের নেত্রী, শিক্ষাবিদ- কোনো একটি পরিচয়ে সীমাবদ্ধ ছিলেন না তিনি৷ ৯৫ বছর বয়সে কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিবেদিতা নাগের মৃত্যু আসলে ইতিহাসের একটি অধ্যায়ের সমাপন৷ ১৯১৮ সালে বাংলাদেশের এক স্বাধীনতা সংগ্রামী পরিবারে জন্ম নিবেদিতার৷ বাবা ছিলেন মাস্টারদা সূর্য সেনের সহপাঠী৷ কলকাতায় বেথুন কলেজে পড়তে এসে প্রথম স্বাধীনতা সংগ্রামে জড়িয়ে পড়েন৷ ১৯৪১ সালে ঢাকা
সালাম, শহীদ আব্দুস (১৯২৫-১৯৫২)

ভাষা আন্দোলনের অমর শহীদদের তালিকায় শহীদ আব্দুস সালাম ছিলেন সরকারি অফিসের পিয়ন। ভাষা আন্দোলনেরমুখপত্র সাপ্তাহিক সৈনিকের শহীদ সংখ্যা ২১ ফেব্রম্নয়ারি ১৯৫৩ থেকে এ তথ্য জানা যায়। ৮ এপ্রিল ১৯৫২ তারিখের দৈনিকআজাদের একটি সংবাদ অনুযায়ী, শহীদ সালাম ২১ ফেব্রম্নয়ারির ঘটনার সময় ঢাকা মেডিকেল কলেজের কাছে গুলবিদ্ধহন।
রফিক, শহীদ মোহাম্মদ (১৯৩২-১৯৫২)

ঐতিহাসিক ভাষা আন্দোলনের বিস্ফোরণোন্মুখ অবস'ায় ১৯৫২ সালের ২১ ফেব্রম্নয়ারিতে শহীদের গৌরব অর্জন করেনশহীদ মোহাম্মদ রফিক। এ সময় তিনি মানিকগঞ্জের দেবেন্দ্র কলেজে আইকম দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ছিলেন। তাঁদের আসলবাড়ি ছিল সিংগাইর উপজেলার পারিল গ্রামে। তিনি ছিলেন আব্দুল লতিফের জ্যেষ্ঠ পুত্র। তাঁর মায়ের নাম রফিজা খানম।ঘটনার সময়
রহমান, শহীদ সফিউর (১৯১৮-১৯৫২)

ঐতিহাসিক ভাষা আন্দোলনের অমর শহীদ সফিউর রহমান ছিলেন ঢাকা হাইকোর্টের একজন কর্মচারী। তিনি পশ্চিম বঙ্গেরহুগলি জেলার অনত্মর্গত কোন্নগর গ্রামে ১৯১৮ সালের ২৪ জানুয়ারি জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পিতার নাম মৌলভী মাহবুবুররহমান। শহীদ সফিউর রহমান কলকাতা গভর্ণমেন্ট কমার্শিয়াল কলেজ থেকে আই.কম পাস করার পর চাকরি নেন।
বরকত, শহীদ আবুল  (১৯২৭-১৯৫২)

ঐতিহাসিক ভাষা আন্দোলনের অমর শহীদ আবুল বরকত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের ছাত্র ছিলেন। তিনিভারতের মুর্শিদাবাদ জেলার ভরতপুর থানার অনত্মর্গত বাবলা গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর জন্ম তারিখ ছিল ১৬ জুন১৯২৭। তিনি ছিলেন মৌলভী শাসুদ্দীনের জ্যেষ্ঠপুত্র। তাঁর মায়ের নাম হাসিনা খাতুন। বরকত তালেবপুর হাইস্কুল থেকে
জব্বার, শহীদ আব্দুল (১৯১৯-১৯৫২)

ভাষা আন্দোলনের অমর শহীদ আব্দুল জব্বার পেশাগত জীবনে একজন দর্জি ছিলেন। ১৪ মার্চ ১৯৫২ তারিখের দৈনিকআজাদে প্রকাশিত সরকারি তথ্য বিবরণীর খবর থেকে তাঁর সম্পর্কে আরো জানা যায় যে, তিনি গফরগাঁওয়ের পাঁচুয়া গ্রামেজন্মগ্রহণ করেন। ২১ ফেব্রম্নয়ারি মেডিকেল কলেজের সামনে গুলিবিদ্ধ হয়ে তিনি আহত হন এবং
অহিউলস্নাহ, শহীদ (জন্ম : অজ্ঞাত, মৃতু : ১৯৫২)

ঐতিহাসিক ভাষা আন্দোলনের অমর শহীদদের তালিকায় একজন আট বছরের বালক রয়েছে যাঁর নাম হলো অহিউলস্নাহ।তিনি ছিলেন রাজমিস্ত্রী হাবিবুর রহমানের ছেলে। শহীদ হওয়ার সময় অহিউলস্নাহ তৃতীয় শ্রেণির ছাত্র ছিলেন। অহিউলস্নাহশহীদ হন ২২ ফেব্রম্নয়ারি ১৯৫২ তারিখে। ওইদিন নবাবপুর রোডে অনেক সেনা মোতায়েন ছিল। মূলত ২১ ফেব্রম্নয়ারির ঘটনারপর সরকার

গাজীউল হক



গাজীউল হক (১৩ ফেব্রুয়ারি, ১৯২৯ – ১৭ই জুন, ২০০৯) ১৯২৯ সালের ১৩ ফেব্রুয়ারি তৎকালীন নোয়াখালী জেলার ছাগলনাইয়া থানার নিচিন্তা গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। বাবা মওলানা সিরাজুল হক ছিলেন কংগ্রেস ও খেলাফত আন্দোলনের একজন সক্রিয় কর্মী। গাজীউল হকের শিক্ষাজীবন শুরু হয় মক্তবে। এরপর কাশিপুর স্কুল।
কাসেম, আবুল প্রিন্সিপাল (১৯২০-১৯৯১)

রাষ্ট্রভাষা আন্দোলনের অন্যতম ব্যক্তিত্ব প্রিন্সিপাল আবুল কাসেম ১৯২০ সালের ২৮ জুন চট্টগ্রামের চন্দনাইশ উপজেলারছেবন্দী গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ১৯৩৯ সালে ম্যাট্রিক, ১৯৪১ সালে ইন্টারমিডিয়েট, ১৯৪৪ সালে পদার্থবিজ্ঞানে ঢাকাবিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিএসসি অনার্স এবং ১৯৪৫ সালে এমএসসি পাশ করেন।

বাচ্চু, রওশন আরা (১৯৩২)



১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলনে রওশন আরা বাচ্চু অত্যনত্ম সক্রিয় ভূমিকা পালন করেন। তখন তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়েরদর্শন বিভাগের ছাত্রী ছিলেন। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীদের সংগঠিত করা ছাড়াও অন্যান্য শিড়্গা প্রতিষ্ঠান ও হলেরছাত্রীদের ভাষা আন্দোলনের পড়্গে সুসংগঠিত করেন। একুশে ফেব্রম্নয়ারি ১৪৪ ধারা ভঙ্গকারী প্রথম ছাত্রীদলের
ইসলাম, অধ্যাপক মির্জা মাজহারুল (১৯২৭)

অধ্যাপক মির্জা মাজহারুল ইসলাম ১৯২৭ সালের ১ জানুয়ারি  টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার চারান গ্রামে জন্মগ্রহণকরেন। তাঁর পিতার নাম মির্জা হেলাল উদ্দিন, মাতার নাম চান্দ খাতুন। ১৯৪৪ সালে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনেপ্রথম বিভাগে ম্যাট্রিক, ১৯৪৬ সালে কলকাতার রিপন কলেজ থেকে আইএসসি এবং ১৯৫২ সালে
চৌধুরী, সাবির আহমদ (১৯২৪)

সাবির আহমেদ চৌধুরী একজন মানবতাবাদী কবি। তাঁর সাহিত্যকর্ম বিশ্বের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে পাঠ্যতালিকার অনত্মর্ভুক্ত।শানিত্ম ও কল্যাণের বন্ধনে তাঁর লেখনী নিয়ত সোচ্চার। সব ধর্মের প্রতি তাঁর অকুন্ঠ শ্রদ্ধাবোধ। তাঁর জীবন, কর্ম ও সাহিত্যসৃষ্টির উপর দেশ বিদেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে বর্তমানে কয়েকজন গবেষক পিএইচডি এবং
মাহবুব, কাজী গোলাম (১৯২৭-২০০৬)

১৯৫২ সালের সর্বদলীয় রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদের আহ্বায়ক কাজী গোলাম মাহবুব ১৯২৭ সালের ২৩ ডিসেম্বর তৎকালীনবাকেরগঞ্জ জেলার গৌরনদী থানার কসবা গ্রামে এক ঐতিহ্যবাহী পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পিতার নাম- কাজী আব্দুলমজিদ ও মাতার নাম আছিয়া খাতুন। তিনি ১৯৪২ সালে টরকী বন্দর হাইস্কুল থেকে ম্যাট্রিক
বেগম, মমতাজ (১৯২৩-১৯৬৭)

রাষ্ট্রভাষা আন্দোলনের ইতিহাসে সবচেয়ে নির্যাতিত, ত্যাগী ও নিগৃহীত নারী ভাষাসৈনিকের নাম মমতাজ বেগম। বাংলাকেরাষ্ট্রভাষা করার সংগ্রামে তিনি তিলে তিলে নিজকে উৎসর্গ করেছেন। ভাষা আন্দোলনে অংশগ্রহণের কারণে স্বামী সংসারহারিয়েছেন, চাকুরি হারিয়েছেন, গ্রেফতার বরণ করেছেন, নানারকম কুৎসা ও গঞ্জনা সহ্য করেছেন।


 
  ::| Events
August 2017  
Su Mo Tu We Th Fr Sa
    1 2 3 4 5
6 7 8 9 10 11 12
13 14 15 16 17 18 19
20 21 22 23 24 25 26
27 28 29 30 31    
 
::| Hot News
ভাষাসৈনিক আবদুল মতিন
সালাম, শহীদ আব্দুস (১৯২৫-১৯৫২)
রফিক, শহীদ মোহাম্মদ (১৯৩২-১৯৫২)
রহমান, শহীদ সফিউর (১৯১৮-১৯৫২)
বরকত, শহীদ আবুল  (১৯২৭-১৯৫২)
জব্বার, শহীদ আব্দুল (১৯১৯-১৯৫২)
অহিউলস্নাহ, শহীদ (জন্ম : অজ্ঞাত, মৃতু : ১৯৫২)
কাসেম, আবুল প্রিন্সিপাল (১৯২০-১৯৯১)
বাচ্চু, রওশন আরা (১৯৩২)
ইসলাম, অধ্যাপক মির্জা মাজহারুল (১৯২৭)

Online News Powered by: WebSoft
[Top Page]